আসছে গরম পর্যন্ত থাকতে পারে করোনা: মাখোঁ

 

ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল মাখোঁ বলেছেন, পরের বছরের মাঝামাঝি পর্যন্ত করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াই চালিয়ে যাবে ফ্রান্স। দেশটিতে করোনায় সংক্রমিতের সংখ্যা ১০ লাখ ছাড়িয়েছে।

প্যারিসের একটি হাসপাতাল পরিদর্শনে গিয়ে ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট বলেন, করোনা সর্বোচ্চ আগামী বছরের গরমকাল পর্যন্ত থাকতে পারে। মাখোঁ বলেন, বিজ্ঞানীরা তাঁকে এমন ধারণার কথা জানিয়েছেন। তবে ফ্রান্স নতুন করে পুরোপুরি বা আংশিক লকডাউন দেবে কি না, তা এখনো বলা যাচ্ছে না।

বিবিসির এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে। স্থানীয় সময় গতকাল শুক্রবার ফ্রান্সে এক দিনে ৪০ হাজারের বেশি মানুষের করোনা শনাক্ত হয়েছে। মারা গেছেন ২৯৮ জন। ইউরোপের অন্য দেশগুলোর মধ্যে রাশিয়া, পোল্যান্ড, ইতালি ও সুইজারল্যান্ডেও করোনা শনাক্তের সংখ্যা বেড়েছে।

বিজ্ঞাপন

প্যারিসের এপি-এইচপি হাসপাতাল গ্রুপের প্রধান মার্টিন হিরশ সতর্ক করে বলেছেন, করোনা সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউ প্রথমটির চেয়ে ভয়াবহ হতে পারে। তিনি বলেন, সাম্প্রতিক সময়ে ধারণা করা হচ্ছে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ বলে কিছু নেই। দ্বিতীয় দফা সংক্রমণ খুব গুরুতর হবে না। কিন্তু আসল পরিস্থিতি উল্টো।

হিরশ আরও বলেন, রাস্তায় অনেক করোনা পজিটিভ মানুষ ঘুরে বেড়াচ্ছেন। তাঁরা নিজেরাও তা জানেন না।

ফ্রান্সের নিবিড় পরিচর্যাকেন্দ্রের (আইসিইউ) ৫ হাজার বিছানার প্রায় অর্ধেকেই করোনায় সংক্রমিত রোগীরা চিকিৎসাধীন।

ফ্রান্সে রাতে জারি কারফিউয়ের মেয়াদ আরও বাড়ানো হয়েছে। শুক্রবার সন্ধ্যা থেকে আগামী ছয় সপ্তাহ কারফিউ চলবে। যখন দৈনিক সংক্রমণ তিন থেকে পাঁচ হাজারের মধ্যে নেমে আসবে, তখন কারফিউ শিথিল করার লক্ষ্য নির্ধারণ করেছে দেশটি।

বিজ্ঞাপন

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বলছে, ইউরোপে করোনার প্রকোপ বেড়ে যাওয়া সংকটজনক। স্বাস্থ্য পরিষেবাগুলো ঠিক রাখতে দ্রুত পদক্ষেপ নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছে সংস্থাটি।

বিবিসি জানিয়েছে, গত ১০ দিনে ইউরোপে দৈনিক সংক্রমণ দ্বিগুণের বেশি বেড়ে গেছে। ইউরোপে ৭৮ লাখ মানুষের করোনা সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে এবং ২ লাখ ৪৭ হাজার মানুষ মারা গেছেন।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রধান তেদরোস আধানোম গেব্রেয়াসুস বলেছেন, আগামী কয়েক মাস হবে খুব কঠিন। কিছু দেশ বিপজ্জনক পথে রয়েছে।

বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাসে সংক্রমিত শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ৪ কোটি ২১ লাখ ছাড়িয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রের জনস হপকিনস ইউনিভার্সিটির তথ্য অনুযায়ী, বিশ্বে আজ শনিবার নাগাদ করোনায় সংক্রমিত শনাক্ত রোগীর সংখ্যা সংখ্যা ৪ কোটি ২১ লাখ ১৪ হাজার ৫২৪। একই সময় বিশ্বে করোনায় মোট মারা গেছেন ১১ লাখ ৪৩ হাজার ২৯১ জন।

 

তথ্যসূত্রঃ ProthomAlo

Reply